ফেসবুকে প্রেম করে কলেজছাত্রীকে ধ’র্ষ’ণ

টাঙ্গাইলের কালিহাতিতে আসিফ সরকার নামে এক যুবককে বিয়ের জন্য আইনি (লিগ্যাল) নোটিশ পাঠিয়েছেন এক কলেজছাত্রী। উপজেলার সল্লা ইউনিয়নের জোকারচর টিকুরিয়া পাড়া গ্রামের ওই যুবককে পাঠানো নোটিশ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।

আসিফ ঢাকায় এপেক্স কোম্পানিতে কর্মরত। তিনি জোকারচর টিকুরিয়াপাড়ার সরকার বাড়ি জোয়াহের সরকারের ছেলে।

নোটিশ অনুযায়ী, ঢাকার মোহাম্মদপুরের এক কলেজছাত্রীর সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয় আসিফ সরকারের। এরপর পরিচয় গড়ায় প্রেমের সম্পর্কে। পরে দুই পরিবারের মধ্যে আলোচনা হয় তাদের সম্পর্কের বিষয়ে। এ নিয়ে আসিফের বাবা জোয়াহের ওই কলেজছাত্রীকে তার ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন।

এরই জেরে গত ১১ জুন আসিফ ওই কলেজছাত্রীকে ঢাকার শাহবাগ থানার টিএসসি চত্বরে আসতে বলেন। পরবর্তীতে ওই কলেজছাত্রীকে সেখান থেকে একটি বাসায় নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন আসিফ। এরপর ওই কলেজছাত্রী আসিফকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান। এতে বাধ্য হয়ে ওই কলেজছাত্রী ঢাকার জজ কোর্টের অ্যাডভোকেট নাসিদুস জামান ওরফে নিশানের মাধ্যমে গত ৩ আগস্ট আসিফ সরকারের কাছে একটি আইনি (লিগ্যাল) নোটিশ পাঠান।

আসিফের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব না হলে তার চাচাতো ভাই কাইয়ুম জানান, তার ভাই কোনো অন্যায় করেনি। আর তারা এ বিষয়ে কোনো উকিল নোটিশ পাননি।

আসিফের বাবা জোয়াহের সরকার আরটিভি নিউজকে জানান, আসিফের সঙ্গে ওই কলেজছাত্রীর শুধু ফেসবুকে যোগাযোগ হয়েছে। তাদের দুজনের কোনোদিন সাক্ষাৎ হয়নি। তাকে হেয় করার জন্য কলেজছাত্রী ভিত্তিহীন অভিযোগ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *